“সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ, প্রতিবাদে মানববন্ধন”

মানবন্ধনের একাংশ
মানবন্ধনের একাংশ

সম্প্রতি বাংলাদেশে মাথাচড়া দিয়ে উঠছে সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ।বর্তমান সময়ে বাংলাদেশের সবচেয়ে বেশি আলোচিত ইস্যু জঙ্গিবাদ-সন্ত্রাস।জঙ্গিবাদ-সন্ত্রাস তান্ডব নিয়ে জনমনে বিরাজ করছে আতঙ্ক।  কখন-কোথায় জঙ্গিদের হামলার স্বীকার  হয়, এনিয়ে গভীর উৎকণ্ঠতায় দিন অতিবাহিত করতে হচ্ছে সাধরন মানুষদের। গত ১ জুলাই রাজধানীর গুলশানে হলি আর্টিজান  বেকারিতে এবং ৭ জুলাই কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়া ঈদগাহ ময়দানে জঙ্গিরা অতর্কিত ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলা চালায়। হামলায় ৪ পুলিশ সদস্যসহ দেশি-বিদেশি ২২ জন নিহত হন।

সম্পূর্ন নিজস্ব উদ্দেশ্য হাসিলের লক্ষ্যে মুসলিমদের পবিত্র ও শান্তির ধর্ম ইসলামকে কলঙ্কিত করার উদ্দেশ্যে তথাকথিত মুসলিম মুখোশধারী জঙ্গিরা অনবরত এইসব সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালাচ্ছে। যার খেসারত দিতে হচ্ছে সাধরণ মানুষজনকে, বুকের টকটকে তাজা রক্তের বিনিময়ে।সবুজে শ্যামল সোনার বাংলায় যেন আজ মেতে উঠেছে রক্তারক্তির খেলায়..

সম্প্রতি জঙ্গিদের এসব নৃশংস তান্ডবলীলার প্রতিবাদের বেগমগঞ্জের মাটি ও মানুষের নেতা আলহাজ্ব মামুনুর রশিদ কিরন(এম.পি) নেতৃত্বে  “টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ,বেগমগঞ্জ,নোয়াখালী” ক্যামম্পাসের সামনে আজ (৩১ জুলাই ২০১৬) অনুষ্ঠিত হয় বিশাল মানববন্ধন।

জঙ্গি-উগ্রবাদীদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ধরনের প্ল্যাকার্ড পেস্টুন নিয়ে মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন “টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ,নোয়াখালীর” সম্মানিত অধ্যক্ষ জনাব ইঞ্জিনিয়ার ফখরুল আলম স্যার সহ অত্র ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সেমিস্টারে অধ্যায়নরত ছাত্র-ছাত্রীবৃন্দ।

মানববন্ধনে উপস্থিত সবার মনে প্রত্যাশা আজ,এই ছোট্ট প্রতিবাদ রূপ পাক জাতীয় প্রতিবাদে।রুখে যাক জঙ্গীবাদ।ফিরে আসুক সাধরণ জনমনে স্বস্তি ।

 

 


আমাদের উৎসাহিত করুনঃ




সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। এই লেখাটি কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয় ।

লেখক সম্পর্কেঃ

বুনন সম্পর্কিত তথ্যঃ