প্রহরী

আমিও এক আঁধার রাজ্যের জেগে থাকা অতন্ত্র প্রহরী। যে রাজ্যে দিবালোক বলে কোনো শব্দের সাথে পরিচয় নেই পথচলার শুরু থেকে। আচ্ছা, কেউ আমাকে একটু বলো না, দিনের বেলায় আকাশ দেখতে কেমন হয়? রাতের আকাশটা কিছুটা হলেও আন্দাজ করতে পারি। কিন্তু, কেমন হয় দিনের বেলায় দেখতে আকাশটা? সবাইতো বলে আকাশের দিকে নাকি তাকানোই যায় না, সূর্যদেব খুব রুষ্ট হয়ে থাকেন বুঝি? আমি তো তাকানোর পর তা টের পাই না, তবুও কেনো আমি আকাশ তোমার দেখা পাই না।

লোকমুখে শুনি, নানা রঙ্গে মেঘের ভেলায় ভেসে স্বপ্নে হারিয়ে যাওয়ার গল্প। কই আমার স্বপ্নেতো শুধু একটাই রং ভেসে বেড়ায়! আচ্ছা, বইয়ের কথা নাকি মিথ্যে হয় না। ওখানে তো বলা আছে, রংধনুর সাতটি রং, তাহলে, আমি কেনো আর রং আর দেখা পাই না??

স্বপ্ন নাকি সবাই দেখতে পারে। আমার বেলাতে কেন এত মানা? আছে কি কারো জানা??? ভরা পূর্ণিমার রাতে শুনেছি আকাশ নতুন রূপে সাজে।
কেমন দেখতে লাগে তখন আকাশ কে?? অপরূপ নাকি লাগে? আচ্ছা, অপরূপ মানে কেমন ? ওই রূপের সাথে কি আমার পরিচয় আছে? হবে কি কোনোদিন?সবার ভালোবাসার অধিকার আছে, আছে অধিকার স্বপ্ন দেখার —-এ তো শোনা কথা। আচ্ছা, সেই সবার মাঝে কি আমরাও আছি?
না,
না,
নাহ্
. …এসব স্বপ্ন আমাদের দেখা মানা।
আছে কি কারো কাছে এসবের উত্তর জানা?

(বিঃদ্র -আমি জানি না কতটুকু লেখা হয়েছে, আদৌ এটা কোন লেখা বলে গণ্য হবে কিনা। তবে এতটুকু বলতে পারি, আমি আমার ভাবনার প্রকাশ ঘটাতে পেরেছি। আমাদের সব কিছুই আছে কিন্তু, তবুও আমারা সুখী না, তাই আমাদের উচিত এই নিষ্পাপ, ফুলের মতন মানুষ গুলোকে অন্যভাবে ট্রিট করার আগে একটাবার অন্তত ভেবে দেখা; ওদের অসহায়ত্বকে নিয়ে হাসি ঠাট্টা না করা। আর কিছু নাই বা পারি, অন্তত এতটুকুন ফিল করানো যে ওরাও মানুষ। এই লেখাটা আমি তাদেরকে ডেডিকেট করছি 💗♥💗।)


আমাদের উৎসাহিত করুনঃ




সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। এই লেখাটি কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয় ।

লেখক সম্পর্কেঃ

বুনন সম্পর্কিত তথ্যঃ