নারীত্বের বিশালতা

হে জগতের পিতা
রাত্রিযাপনে মোর পদতলে সঁপিয়াছ নিজ মান
সূর্যোদয়ে দিয়েছি তবু অর্ধাঙ্গের সম্মান
পতিরূপে পদতলে করিয়াছি স্বর্গের সন্ধান
ভালোবাসায় ভরিয়া লইয়াছি পুরুষত্বের দান
উপহার দিয়েছি তোমায় পিতৃত্বের সম্মান।

বিষাদ যাতনা আঁকড়িয়ে জিতিয়াছি
দিয়েছি শুধু নারীত্বের প্রমাণ।।

বিনিময়ে হইয়াছি আমি তোমাতেই ম্লান
তোমাতেই পদদলিত হইয়াছে আমার সম্মান,

তোমার সন্তানেরে দিয়ে মোরে ভার
পুরুষত্বের প্রমাণ রাখিয়াছ পতিতার গাঁয়।

যেই বক্ষ দুগ্ধরূপে করিয়াছ পান
সেই বক্ষে আঁকিয়াছ আসক্তির মান
জগৎ দিয়াছে আমায় ধর্ষিতার সম্মান।।

আমারই জঠরে লভিয়াছ তুমি এক জনম
এই জনমে  কেন আামারই গর্ভে
তোমারই বেজন্মা সন্তান।

যুগে যুগে অবহেলিত হইয়াছি আমি
করিনি তোমাকে অবহেলা, অপমান

কারন আমি যে নারী,
মাতৃত্বই আমার সার্থক নারী জনম।।।।


আমাদের উৎসাহিত করুনঃ




সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। এই লেখাটি কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয় ।

লেখক সম্পর্কেঃ

বুনন সম্পর্কিত তথ্যঃ