মেঘপরী ও বালকটি

ঈশান কোনে মেঘ জমেছে
ঘর ভরা তার জলের ধারা।

সেই বৃষ্টি এমন প্রতাপ
ধুয়ে দেয় তার রঙিন ধরা।

গল্প বলি একটা ছোট
তুলে নিও নিজের মত,
উড়িয়ে দিয়ে নিজের পালক
হাসি খুশি সে অবুঝ বালক।

এক বিকেলে বাধ্য ছেলে
অবাধ্য হয় রঙিন মেঘে।

বুসঝেনি সে রঙের বজ্রানলে
মেঘপরী তার কষ্ট বুনে।

ছন্নছাড়া বালকটি তার
স্বপ্ন গড়ে দিবা আঁধার।

মেঘপরী তার মেঘরাজ্যে
চাঁদ তারা দিয়ে রাত ভুলে।

একদিন পরীর পূর্ব কোনে
দেখা মিলে তার ভোরের সনে।

পড়ে রয় তার রাত এখনো
চাঁদ তারায় খুব গোছানো।

বালক জানে খুব ধীরে
ভোর এসেছিলো তারও আগে।

মঝখানের সময়টুকুন
জোছনায় ভেজা চাঁদের মুকুল।

রাত তার রুপালি আলোয়
চাঁদনীর খোঁজে হারায় ভালোই।

পড়ে রয় গল্পের বালক
পরীর রাজ্যের সুখের পালক।

দুঃখ তো সেই পাবে
যে পরে এসে পড়ে রবে।

বুঝ বালক খুব বুঝে
রাত সে তো হারায় আঁধারে।

ঈশান কোনে মেঘ জমেছে
ঘর ভরা তার জলের ধারা।

সেই বৃষ্টির এমন প্রতাপ
ধুয়ে দেয় তার রঙিন ধরা।


আমাদের উৎসাহিত করুনঃ




সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। এই লেখাটি কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয় ।

লেখক সম্পর্কেঃ

বুনন সম্পর্কিত তথ্যঃ