অবাস্তব কল্পণা

পড়ন্ত গোধূলীতে,
তুমি নীল শাড়িতে,
আর আমি লাল পাঞ্জাবিতে রিকশায় ।

ল্যাম্প পোষ্টের সোডিয়াম আলোর নিচে,
আমার কাঁধে তোমার মাথা রাখা,
সবই অবাস্তব কল্পণা।

একটু পরপর দুজনের চোখে চোখ,
মৃদু হাসি মাখা তোমার ঐ মায়াবি মুখ,
সবই অবাস্তব কল্পণা।

অস্পষ্ট স্পর্শ গুলোর ছোট ছোট অনুভূতি,
ক্ষণিকের জন্য দুজনের মৃদু কথা কাটাকাটি,
সবই অবাস্তব কল্পণা।

একে অন্যের মুখে খাবার তুলে খাইয়ে দেয়া,
দীর্ঘক্ষণ পাশে থাকার বায়না,
সবই অবাস্তব কল্পণা ।

একে অন্যের প্রতি নেয়া ছোট ছোট যত্ন,
ধূসর আলোয় দেখা রঙিন স্বপ্ন,
সবই অবাস্তব কল্পণা ।

চাঁদনি রাতে বারান্দায় বসে থাকা,
চাঁদের আলোয় দুজন দুজনের দিকে চেয়ে থাকা,
সবই অবাস্তব কল্পণা ।

নিজেকে নিজের মথ্য থেকে হারিয়ে ফেলা,
তোমাকে নিজের মধ্যে অনুভব করা,
সবই অবাস্তব কল্পণা ।

আমার কল্পণার রাজ্যটাই অবাস্তব,
আর তুমি একটা কল্পণা,
আসলে তুমি টাই অবাস্তব কল্পণা,
যার অস্তিত্ব শুধুই কল্পণাই ।


আমাদের উৎসাহিত করুনঃ




সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। এই লেখাটি কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয় ।

লেখক সম্পর্কেঃ

বুনন সম্পর্কিত তথ্যঃ