নব প্রাণ

আমরা সমুদ্র হতে সৃষ্টি
বজ্র বিদ্যুৎ হাতে ধরি।
আমাদের মাঝেই ঢেউ ভাঙ্গে
বিজলী নাচিয়া উঠে।
আমরা উষা কালের শান্ত পাখি,
ঘুম ভাঙ্গাই প্রভাত খুকিরে নিজ কণ্ঠে ডাকি।
কিভাবে রুধিবে আমাদের কোলাহল?
আমরাই তো স্বয়ং মৃত্যুদল।
সদা উজ্জ্বল মিষ্টি রোদের শান্ত ছায়া
আমরাই তো তোমাদের ত্রিশূলধারী মায়া,
আমরাই মাতৃভক্ত পথহীন নরাধম,
আমরাই সাধকের নির্ভয়ের তপোবন।
শতবর্ষীয় নরকের নর কঙ্কাল আমরা
আমাদের স্বাদ এখনো মিটেনাই, মিটেনাই জ্বালা।
মোরা চলমান রাতের চন্দ্র,
মোদের টানেই ফুঁসে উঠে স্থির মহাসমুদ্র।
আমরাই কালবৈশাখী ঝড়
আমাদের বাহুপাশেই ভাঙ্গে শশধর।
আমরা বসন্তের জংলী ফুল,
মোহীত গন্ধে আবিষ্ট করি নব প্রাণকুল।
আমাদের মাঝেই পিতৃ মাতৃ ছায়া
শান্ত শীতল শিশির বিন্দু সম কায়া।
আমরা ভাঙ্গিব তোমাদের কলুষিত বল,
ভাব, কিভাবে রুধিবে আমাদের কোলাহল?


আমাদের উৎসাহিত করুনঃ




সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। এই লেখাটি কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয় ।

লেখক সম্পর্কেঃ

বুনন সম্পর্কিত তথ্যঃ